বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৯ এপ্রিল ২০১৭

বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন প্রতিষ্ঠা দিবস উদযাপন-২০১৭


প্রকাশন তারিখ : 2017-04-09

৮ এপ্রিল পাবলিক সার্ভিস কমিশন প্রতিষ্ঠা দিবস। ১৯৭২ সালের ৮ এপ্রিল প্রেসিডেন্সিয়াল অর্ডার (পিও)-৩৪ আদেশবলে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ  বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর হাতে বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশন প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে প্রতিষ্ঠা দিবসের কর্মসূচির উদ্বোধন করেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মোঃ মোজাম্মেল হক খান। সভাপতিত্ব করেন কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক।  

এ উপলক্ষে বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশনের হলরুমে সেমিনার ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। পিএসসি'র সচিব আকতারী মমতাজ স্বাগত বক্তব্য উপস্থাপন করেন। সেমিনারে "বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের নিকট প্রজাতন্ত্রের প্রত্যাশা ও প্রাপ্তি" শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশনের সদস্য অধ্যাপক ড. আব্দুল জব্বার খান। এ প্রবন্ধের মাধ্যমে  স্বাধীনতার পর থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত জনপ্রশাসনে দক্ষ জনবল নিয়োগে পিএসসি'র উল্লেখযোগ্য কার্যক্রম তুলে ধরা হয়। প্রবন্ধে সল্পতম সময়ে ক্যাডার ও নন- ক্যাডার নিয়োগ, লিখিত পরীক্ষার খাতা দ্বিতীয়বার মূল্যায়ন এবং বিসিএস (তথ্য-প্রযুক্তি) নামে নতুন একটি ক্যাডার সৃজনের প্রস্তাব করা হয়।  এরপর নির্ধারিত আলোচক হিসেবে সরকারী কর্ম কমিশনের সদস্য অধ্যাপক ড. শরীফ এনামুল কবির তার বক্তব্য তুলে ধরেন। আলোচনায় পিএসসি'র বিজ্ঞ সদস্যবৃন্দ, পিএসি'র কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করেন।   

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, "বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন প্রতিষ্ঠা দিবস পালনের মাধ্যমে আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত এই প্রতিষ্ঠানের ইতিহাস ও ঐতিহ্যের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন এবং এই প্রতিষ্ঠানের ওপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথ পালনে যে অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছে তা আমাকে আনন্দিত ও গর্বিত করেছে। অনেক রক্ত, অশ্রু এবং সর্বোচ্চ ত্যাগের মাধ্যমে যে দেশ পেয়েছি সে দেশের মানুষের দারিদ্র দূর করে তার জীবনমান উন্নত করার যে মহতী উদ্যোগ তাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য এই প্রতিষ্ঠানটিকে নিবেদিতপ্রাণ হয়ে কাজ করতে হবে। আমি আরও আনন্দিত যে বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন সর্বোচ্চ নিষ্ঠা, দক্ষতা ও নিরপেক্ষতার সঙ্গে এ দায়িত্ব পালন করছে।"

বিশেষ অতিথি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মোঃ মোজাম্মেল  হক তার বক্তব্যে বলেন, "বর্তমান সময়ে পিএসসি  আগের থেকে অনেক দ্রুততার সাথে বিভিন্ন নিয়োগ পরীক্ষার কার্যক্রম সম্পন্ন করছে। সাংবিধানিক এই প্রতিষ্ঠানটিকে আমরা আরও গতিশীল করতে চাই। এ লক্ষে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় হতে অব্যাহতভাবে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করা হবে।"     

অনুষ্ঠানের সভাপতি পিএসসি চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক বলেন, "নতুন সহস্রাব্দের বাংলাদেশের উন্নয়ন অভিযাত্রায় জনপ্রশাসনে দেশপ্রেমিক, দক্ষ ও মেধাবী জনশক্তি বাছাইয়ের ক্ষেত্রে আন্তরিকতা, দক্ষতা ও সততা নিয়ে সবাইকে কাজ করতে হবে। পিএসসি'কে আরও গতিশীল করার জন্য সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা আবশ্যক।"

সেমিনার ও আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয়। পিএসসি'র কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা এতে অংশগ্রহণ করেন।  


Share with :
Facebook Facebook