১৭-মার্চ-জাতির-পিতা-বঙ্গবন্ধু-শেখ-মুজিবুর-রহমানের-জন্মশতবার্ষিকী-উদযাপন

বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

মেনু নির্বাচন করুন

Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৮ মার্চ ২০২০

১৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন


প্রকাশন তারিখ : 2020-03-17

বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশন সচিবালয়ে ১৭ মার্চ ২০২০ মঙ্গলবার সকাল ১০:০ টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী পালন করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে কমিশন চত্বরে নির্মিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়। কর্ম কমিশন ভবনে লাল সবুজ বেলুন উড়িয়ে দিবসটি উদযাপন করা হয়।

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী, বাংলাদেশ  জাতিরাষ্ট্রের প্রধান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কমিশন ভবন ও চত্বরে আলোকসজ্জা করা হয়। এই মহান দিবসকে স্মরণ করে কমিশনের মাননীয় চেয়ারম্যান বলেন, “জাতির পিতার জন্ম না হলে পৃথিবীতে বাংলাদেশ নামের এই জাতিরাষ্ট্রের জন্ম হত না। বাঙ্গালীর একটি স্বাধীন পতাকা, বাঙ্গালীর একটি জাতীয় সঙ্গীত, বাঙ্গালীর একটি স্বাধীন রাষ্ট্র এবং সংবিধান- পৃথিবীতে আমাদের আত্মপরিচয়কে উন্মোচিত করেছে। জাতির পিতার জ্যেষ্ঠ সন্তানের নেতৃত্বে পৃথিবীতে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। আসুন আমরা সবাই আমাদের সততা, মমতা ও দক্ষতাকে এই জাতিরাষ্ট্রের জন্য উৎসর্গ করে প্রজাতন্ত্রের মানুষের জন্য নিবেদিতপ্রাণ কর্মী হয়ে জাতির পিতার প্রতি প্রকৃত শ্রদ্ধা নিবেদন করি।” বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশনের বিজ্ঞ সদস্যগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। কমিশন সচিবালয়ের সচিব জনাব মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন। এছাড়াও কমিশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ অংশগ্রহণ করেন।

বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশন সচিবালয়ে ১৭ মার্চ ২০২০ মঙ্গলবার সকাল ১০:০ টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী পালন করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে কমিশন চত্বরে নির্মিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়। কর্ম কমিশন ভবনে লাল সবুজ বেলুন উড়িয়ে দিবসটি উদযাপন করা হয়।

 

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী, বাংলাদেশ  জাতিরাষ্ট্রের প্রধান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কমিশন ভবন ও চত্বরে আলোকসজ্জা করা হয়। এই মহান দিবসকে স্মরণ করে কমিশনের মাননীয় চেয়ারম্যান বলেন, “জাতির পিতার জন্ম না হলে পৃথিবীতে বাংলাদেশ নামের এই জাতিরাষ্ট্রের জন্ম হত না। বাঙ্গালীর একটি স্বাধীন পতাকা, বাঙ্গালীর একটি জাতীয় সঙ্গীত, বাঙ্গালীর একটি স্বাধীন রাষ্ট্র এবং সংবিধান- পৃথিবীতে আমাদের আত্মপরিচয়কে উন্মোচিত করেছে। জাতির পিতার জ্যেষ্ঠ সন্তানের নেতৃত্বে পৃথিবীতে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। আসুন আমরা সবাই আমাদের সততা, মমতা ও দক্ষতাকে এই জাতিরাষ্ট্রের জন্য উৎসর্গ করে প্রজাতন্ত্রের মানুষের জন্য নিবেদিতপ্রাণ কর্মী হয়ে জাতির পিতার প্রতি প্রকৃত শ্রদ্ধা নিবেদন করি।” বাংলাদেশ সরকারী কর্ম কমিশনের বিজ্ঞ সদস্যগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। কমিশন সচিবালয়ের সচিব জনাব মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন। এছাড়াও কমিশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ অংশগ্রহণ করেন।

 



Share with :

Facebook Facebook